শুরুতেই হোঁচট খেলো ‘পাসওয়ার্ড’ ! হিন্দি গানের কপি ? সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর বিতর্ক

306
আরোও পড়ুন :

Image Source : Google

পুজোয় আসছে দেবের নতুন ছবি ‘পাসওয়ার্ড’ সেই কথা আমরা সকলেই জেনে গেছি। ছবির টিজার থেকে শুরু করে কাস্টিং সবকিছুই দর্শকদের মনে আলাদা করে জায়গা করে নিতে পেরেছিল কারণ, বাংলায় পাসওয়ার্ডের মতো বিষয় নিয়ে ছবি আগে হয়নি এমনটাই দাবি করা হয়েছিল প্রোডাকশনের তরফে। অন্যদিকে ছবির কাস্টিং ও নজরকাড়া।

আরোও পড়ুন :

তবে মুক্তির আগে হোঁচট খেল ‘পাসওয়ার্ড’ কারণ সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে পাসওয়ার্ডের একটি গান ‘ট্রিপ্পি লাগে’। এই গানে আমরা দেখতে পাচ্ছি নবাগত অদৃত এবং ছবির নায়িকা রুক্মিণী কে তবে গানের সঙ্গে প্যারালাল কাটে দেবের একটি অ্যাকশন সিকোয়েন্স ও আছে। গানটির সিনেমাটোগ্রাফি, কোরিওগ্রাফি, কাট সবকিছু খুব সুন্দর করে দর্শকের সামনে পরিবেশন করা হলেও গলদ কিন্তু মূল জায়গায়।

Loading...

২০১৪ সালে বলিউডে ‘দ্য সকিন্স’ নামে একটি ছবি হয়েছিল যেখানে লিজা হেডেন একটি গানে কোমর দুলিয়েছিলেন। গানটির নাম ছিল ‘মানালি ট্রান্স’। সুরকার ছিলেন হানি সিং এবং গেয়েছিলেন নেহা কক্কর। তো পাসওয়ার্ডের নতুন গান ‘ট্রিপ্পি লাগে’র সুর হুবহু ‘মানালি ট্রান্স’ গানের কপি। এবার যদি একটা গানের সুরই কপি হয়ে যায় তাহলে গানে নতুন কি থাকে? পরীক্ষার খাতায় যদি গোটা উত্তরই কপি থাকে তাহলে কি তাকে ভালো নম্বর দেওয়া যায়? যতই পেনের কালি আলাদা হোক, নাম আলাদা হোক আসল জিনিস তো হুবহু কপি।

- Advertisement -

এত টাকা খরচ করে এত খেটে দর্শকদের মনে প্রত্যাশা জাগিয়ে এরকম কপি গান করার কি মানে তা অনেকেই বুঝতে পারছেন না। সোশ্যাল মিডিয়ায় মানুষের অস্বস্তি শুরু হয়েছে,ইউটিউব খুললেই এই বিষয়ে ভিডিও তে ছড়াছড়ি। গাদা গাদা টাকা খরচ করে এত কিছু করেও মূল জায়গায় কপির তকমা থেকে বেরোতে পারছেনা টলিউডের অধিকাংশ প্রোডাকশনই। এর যুক্তি কী বা হতে পারে? বাংলা ছবিতে কি এই মুডের স্বাধীন স্বতন্ত্র গান বানানো যায়না? নাকি দেব ভুলে গেছেন শুধু টিজার আর ট্রেলার দিয়ে মানুষকে বোকা বানানো যায়না। মানুষ স্বতন্ত্র কাজ দেখতে পছন্দ করে সেটা কোনো যুক্তি দিয়েই ভাঙা সম্ভব নয়। যাই হোক, সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে বিতর্ক, একদল মনে করছেন যেমন হুবুহু কপি আবার আরেকদল মনে করছেন অনেকটাই আলাদা, আপনিও এক ঝলকে দুটি গান কে একসাথে দেখে নিন।

আরোও পড়ুন :