রিয়ার বিষয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আনলেন সুশান্তের ফিটনেস ট্রেনার

1237
- Advertisement -

Image Source : Instagram

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই ‘স্বজনপোষণ’ এবং ‘নেপটিজম’কে দায়ী করে আসছেন দেশের এক শ্রেণীর মানুষ থেকে শুরু করে বলিউডের একাংশ। তবে দিন যত এগোচ্ছে ততই এইসব সম্ভাবনা চাপা পড়ে প্রকট হচ্ছে সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর ভূমিকা। যবে থেকে সুশান্তের বাবা কে কে সিং পাটনা থানায় রিয়ার নামে FIR দায়ের করেছেন তবে থেকে গোটা ঘটনা ঘুরে গেছে রিয়ার দিকে। এখন উঠে এল এমন এক চাঞ্চল্যকর তথ্য যা আরো বেশি করে নজর ঘোরাতে বাধ্য করবে রিয়ার ওপর।

- Advertisement -

বিগত পাঁচ বছর ধরে সুশান্ত ফিটনেস ট্রেনিং নিচ্ছেন সমীর আহমেদের কাছ থেকে। সম্প্রতি একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের স্টিং অপারেশনে সমীর আহমেদকে যখন সুশান্তের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হয় তখন সমীরের সাফ বক্তব্য সুশান্ত দিন দিন বেশ উন্নতি করছিল ফিটনেসের দিক থেকে। তবে তিনি কী ওষুধ খেতেন তা জানতেন একমাত্র রিয়া। ক্লায়েন্ট কী ওষুধ খাচ্ছে তা ফিটনেস ট্রেনার হিসেবে জানার কথা ছিল সমীরের কিন্তু সমীর তা জানতেন না উল্টে সুশান্ত যে কখনো মানসিক অবসাদের শিকার ছিলেন তা মানতে পারছেন না সমীর। সমীর যে শুধুমাত্র সুশান্তের ফিটনেস ট্রেনার তাই নয়, সুশান্তের ঘনিষ্ঠ বন্ধুও ছিলেন।

১ই জুন সুশান্তের সঙ্গে ফোনে শেষ কথা হয় সুশান্তের। তখন সুশান্তকে স্বাভাবিক মনে হয়েছিল সমীরের তবে রিয়া চক্রবর্তী সুশান্তের জীবনে আসার পর থেকে যে সুশান্তের জীবন ধীরে ধীরে বদলে যেতে থাকে এমনটা মনে করেন সমীরও। সুশান্তের বাকি বন্ধুবান্ধব এবং আত্মীয় পরিজনদেরও একই দাবি। মানসিক অবসাদের চিকিৎসার জন্য সুশান্তকে দেখতো রিয়ারই পরিচিত একজন ডাক্তার। সুশান্তের বাড়ির কাজের পরিচারকদের ছাড়িয়ে দিয়েছিল রিয়া। লকডাউনের আগে একজন বিশ্বস্ত দেহরক্ষীকেও কাজ থেকে ছাড়িয়ে দিয়েছিল সে। রিয়ার এই সমস্ত কাজ গুলো তাঁকে অনেক প্রশ্নের সামনে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে যেখান থেকে বেরোনো খুব এক সহজ নয় অভিনেত্রীর পক্ষে।

আরোও পড়ুন :