‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ মানেই ল্যাপটপে ডুবে থাকা? বরং কিছুটা সময় বের করে উপভোগ করুন দাম্পত্য জীবন, রইলো টিপস

47
- Advertisement -

Couples Indifference in Love Making
Image Source: Google

বর্তমান জীবনের যাবতীয় স্ট্রেস, গ্লানি এবং চাপকে সরিয়ে রেখে বিবাহিত জীবনে সুখী থাকাই সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ। নিজেদের ব্যস্ততাকে সরিয়ে রেখে একসঙ্গে সময় কাটানো কিছুদিন আগেও একটু অসুবিধা হলেও লম্বা লকডাউন এবং বর্তমানে ‘ওয়ার্ক ফর্ম হোম’ দম্পতিদের অনেকটা কাছে আসার সুযোগ করে দিয়েছে। ‘ওয়ার্ক ফর্ম হোম’ মানেই কি শুধু ল্যাপটপে ডুবে থাকা? মোটেই নয় এই সময়ে বরং নিজের জীবন সঙ্গীর সাথে সময় কাটানোকে উপভোগ করুন, রইলো কিছু টিপস,

- Advertisement -

১. সময় করে রোমান্টিক ফিল্ম দেখুন। স্বামী-স্ত্রী দুজন একসঙ্গে বসে রোমান্টিক কিছু সিনেমা দেখতে পারলে কাজ দেবে। এতে শারীরিক সম্পর্কে নতুন করে উৎসাহ আসতে পারে। আর আজকাল তো অনলাইন প্ল্যাটফর্মে সিনেমার অভাব নেই। যেটা চাইবেন সেটাই পাবেন।

২. মিলনের ক্ষেত্রে একান্ত সময়ে খোলামেলা হতে কোনো অসুবিধা নেই। আর সমীক্ষা বলে যে দম্পতিরা নগ্ন অবস্থাতেই ঘুমান তাদের শারীরিক সম্পর্ক অন্যদের তুলনায় ভালো হয়।

৩. সামনে ঝুঁকে যেসব ব্যায়াম করতে হয়, সেগুলো বেশি করি অনুশীলন করুন। এগুলো ইয়োগাতেও রয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে, এ ধরনের অনুশীলন অর্গাজম দেরি করে এবং বেশি সময় ধরে মিলনের সুযোগ করে দেয়। সকাল সকাল উঠে একটু শরীরচর্চায় লেগে পড়ুন।

৪. যখন-তখন তাজা ফলমূল কিংবা খাবারের সুবাস নিন। গবেষকরা বলছেন খাবারের সুগন্ধ নারীর মিলনের আকাঙ্ক্ষা বাড়িয়ে দেয়। অন্যদিকে আপেলের সুগন্ধ পুরুষের কামনা বাড়িয়ে দেয়।

৫. ধূমপানের কারণে পুরুষের শারীরিক শক্তিতে সমস্যা সৃষ্টি হয়। এছাড়া এটি পরিপূর্ণ তৃপ্তির ক্ষেত্রেও সমস্যা সৃষ্টি করে। তাই ধূমপান বাদ দিলে মিলন বেশি উপভোগ্য হবে।

৬. জানা যায়, বেশি করে চুম্বন করলে তা দম্পতিদের মিলনে উৎসাহ অনেকগুণ বাড়িয়ে দেবে। এছাড়া এটি অন্তরঙ্গতা বাড়তেও ভূমিকা রাখে। পুরুষের তুলনায় নারীর জন্য এটি বেশি প্রয়োজনীয়।

৭. বিশেষ কিছু খাবার মিলনে উৎসাহিত করে। যেমন, কুমড়ার বীজ, আমলকি, রসুন, চকলেট, কলা ইত্যাদি।

আরোও পড়ুন :