হেলমেট পড়ার আগে জেনে নিন এই নিয়মগুলো, নাহলেই বিপদ

220
- Advertisement -
ছবি : প্রতীকী

ফুল-ফেস হেলমেট পড়লে যদি আপনার মনে হয় দমবন্ধ হয়ে আসছে তাহলে, আপনি খোলা-মুখের হেলমেটও পরতে পারেন। তবে যদি সুরক্ষার কথা বলেন তাহলে বলবো ফুল-ফেস হেলমেট পরাই সব থেকে ভালো।

- Advertisement -

খেয়াল রাখবেন এই হেলমেট যেন আপনার মাথায় কখনো লুজ অথবা টাইট না হয়। । হেলমেট পড়ার পর সঠিক ফিট হয়েছে কিনা তা দেখার জন্য হেলমেট পরার পরে চারিদিকে তর্জনীটুকু পুরো ঢুকেছে কিনা এবং তা দেখে নিন একবার, যদি ঠিক থাকে তাহলেই বুঝে যাবেন যে হেলমেটটি ঠিকঠাকই আছে। হেলমেটটি পরার পর সামনের সবকিছু স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছেন কি না, তা যাচাই করে নেবেন। নিরাপত্তা বিধি অনুযায়ীও মাথার হেলমেটটি যেন যথাযথ হয়। হেলমেটে আইএসআই ছাপ আছে কি না, সেটাও দেখে নেবেন। আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের ক্ষেত্রে ডট, এস, স্নেল এবং বিএসআই ছাপ ঐ খুব জরুরি।

হেলমেটের ভিতরে হাওয়া – বাতাস যেন ঠিকঠাক ঢোকে। নাহলে কিন্তু দমবন্ধ লাগতে পারে আপনার এবং তার ফলে আপনার খুব ঘেমে যাওয়ার সম্ভাবনাও থাকে। সবসময় খেয়াল রাখবেন যে, হেলমেট পরলে যেন আবার ঘাড়ের ব্যথা না হয়। সেই বিষয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং প্রয়োজনে হেলমেট বদলান। ইদানীং কিন্তু বাজারে ব্লু-টুথ লাগানো হেলমেটও পাওয়া যায়। এই ধরনের হেলমেট যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে ফোনে কথা বলতে আপনার বেশ সুবিধেই হবে। ফ্রিতে পেলেও কখনো অন্যের ব্যবহার করা হেলমেট।

আরোও পড়ুন :