মুম্বাই পুলিশের বিরুদ্ধে এবার মারাত্মক অভিযোগ আনলো বিহার পুলিশ

43
- Advertisement -

Image Source : Google

গত ১৪ই জুন নিজের বাড়িতে আত্মহত্যা করেছেন বলিউডের অন্যতম প্রতিভাবান অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। তাঁর মৃত্যুর পর থেকে ক্রমেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক। মানুষ সুশান্তের মৃত্যুর বিচার চাওয়ার পাশাপাশি বলিউডের একঝাঁক প্রভাবশালী ব্যক্তিদেরকেও একহাত নিয়েছে। স্টারকিডদের সিনেমা বয়কট করারও ডাক উঠেছে। আর এসবের মধ্যে সুশান্তের বাবা কেকে সিং বিহার থানায় অভিযোগ দায়ের করার পর বিহার পুলিশও গোটা ঘটনার তদন্ত করছে নিজেদের মতো করে।

- Advertisement -

আর এরপর থেকেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। মুম্বাই পুলিশ এবং বিহার পুলিশের মধ্যেকার দ্বন্দ্ব ক্রমেই আরো বেড়ে চলেছে দিন দিন। ইতিমধ্যে বিহার পুলিশের সবথেকে গুরুত্বপূর্ন অফিসার বিনয় তিওয়ারিকে জোর করে পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে। এরপরেই বিহার পুলিশ এবং মুম্বাই পুলিশের মধ্যেকার তরজা সামনে চলে এসেছে। সম্প্রতি বিহার পুলিশের ডিজি গুপ্তেশ্বর পান্ডে প্রশ্ন তুলেছেন মুম্বাই পুলিশ আর্থিক তছরূপের বিষয়টি সযত্নে এড়িয়ে যাচ্ছে। তাঁর কথা অনুযায়ী, ‘গত চার বছরে সুশান্তের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৫০ কোটি টাকা জমা পড়েছিল। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে পুরো টাকাটাই সেই অ্যাকাউন্ট থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে। এক বছরে ওঁর অ্যাকাউন্টে ১৭ কোটি টাকা জমা পড়েছিল। তারমধ্যে ১৫ কোটিই তুলে নেওয়া হয়েছে। এটা কি তদন্তের দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট নয়? আমরা কিন্তু চুপ করে বসে থাকব না। আমরা মুম্বই পুলিশকে প্রশ্ন করছি, কেন এই ধরনের লিড ধামাচাপা দেওয়া হচ্ছে।’

অন্যদিকে সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কেকে সিং জানিয়েছেন, ‘গত ২৫ ফেব্রুয়ারি আমি বান্দ্রা পুলিশকে জানিয়েছিলেন আমার ছেলের জীবন বিপদের মুখে। ১৪ জুন ও মারা গিয়েছে এবং আমি গত ২৫ ফেব্রুয়ারি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছিলাম। ছেলের মৃত্যুর ৪০ দিন পরেও পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করেনি। তাই আমি পটনাতে এফআইআর দায়ের করেছি।’

আরোও পড়ুন :