আমরা যদি জঙ্গলেই বোমা ফেলতাম, তাহলে পাকিস্তান জবাব দিল কেন? বললেন বায়ুসেনা প্রধান

409
আরোও পড়ুন :
Image Source : Google

১৪ই ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ জওয়ানদের ওপরে যে আত্মঘাতী হামলা চালায় পাক জঙ্গি, প্রায় ৪০ জনেরও বেশী প্রাণ হারান জওয়ানরা। তারই বদলা নিতে ঠিক ১২ দিন পর পাকিস্তানের আকাশে এয়ার স্ট্রাইক করেন ভারতীয় বায়ুসেনা। অভিজানের পাঁচদিন পরে বায়ুসেনার প্রধান বিএস ধানোয়া সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জবাব দিলেন।

ভারতের এয়ার স্ট্রাইকে ঠিক কতজন মারা গিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। সরকার কিংবা বায়ুসেনার পক্ষ থেকে মোট কতো জন মারা গিয়েছে তার হদিস মেলেনি। সুত্রের মারফত জানা গিয়েছে, কয়েকশ জঙ্গিকে মারা সম্ভব হয়েছে। বায়ুসেনা প্রধানকে সেই প্রশ্ন করায় তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের টার্গেটে আঘাত করেছি। তবে কতজন মারা গিয়েছে তা আমরা বলব না, সরকার বলবে।’

পাকিস্তানের কথায়, বালাকোটে নাকি কোন বিস্ফোরণই হয়নি, ভারতের অভিজানে তেমন কোন ক্ষতিই হয়নি। সেখানকার জঙ্গলে গিয়ে নাকি ভারতীয় বায়ুসেনারা বোম ফেলে এসেছে। তাদের কথার পরিপ্রেক্ষিতে বিএস ধানোয়া বলেন ‘আমরা যদি জঙ্গলেই বোমা ফেলে থাকি, তাহলে পাকিস্তান কেন পাল্টা আঘাত করতে এল।’ তাঁর দাবি টার্গেটে আঘাত করা হয়েছে বলেই জবাব দিতে এসেছিল পাকিস্তান। তবে বায়ুসেনার অভিযানের কতজনের মৃত্যু হয়েছে তা তাঁর বলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন বায়ুসেনা প্রধান। তবে কতগুলো টার্গেটে আঘাত করা হয়েছে, তা গুনতে পারে বায়ুসেনা। আর সেইসব টার্গেটে কত জঙ্গি উপস্থিত ছিল, তা থেকে মৃতের সংখ্যা বেরিয়ে আসবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

অন্যদিকে,পাকিস্তানের দিক থেকে ধেয়ে আসা আধুনিক F-16 বিমানকে তাড়া করতে কেন মিগ বিমান পাঠানো হল, সেই প্রশ্নও সামনে এসেছে। এর জবাবে বিএস ধানোয়া জানিয়েছেন, মিগ বিমান আপগ্রেড করা হয়েছে। এতে অত্যাধুনিক এয়ার-টু-এয়ার মিসাইল সিস্টেম রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আরোও পড়ুন :