এই ৫টি গোপন তথ্য বিমান সেবিকারা কখনও কারও সাথে শেয়ার করে না

92
- Advertisement -
ছবি : প্রতীকী

বিমান সেবিকারা ফ্লাইটের যাত্রীদের নানারকম দেখভালের দায়িত্বে থাকে, শুধু যে দেখভাল করা তা কিন্তু নয়, আরও অনেক কাজ থাকে এই বিমান সেবিকাদের সামলানোই শুধু নয়, সাথে আবার যাত্রীদের সমস্ত সুরক্ষার দায়িত্ব ও তাঁদের উপরেই থাকে।

- Advertisement -

অর্থাৎ, যদি বিমানে কোনও রকম সমস্যা হয়, তাহলে কি ভাবে যাত্রীদের শান্ত রাখা যায়, সেই বিষয়টাও তাঁদেরকেই দেখতে হয়।

কিন্তু এই বিমান সেবিকাকদের এমন কয়েকটি কাজ রয়েছে যার ব্যপারে কখনোই কোনও তথ্য পাওয়া যায় না। রইল এমনই পাঁচ তথ্য—

একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিমান সেবিকারা একদম ‘ফ্লাইট টাইম’ ধরেই তাঁদের স্যালারি পান। অর্থাৎ, বিমানের দরজা বন্ধ হওয়ার পর থেকেই তাঁদের কাজ চালু হয়ে যায় এবং যতক্ষণ না তাঁরা গন্তব্যে গিয়ে পৌঁছচ্ছেন ততক্ষণ তাঁদের কাজ চলতেই থাকে।

২। আপনি যদি খুব বেশি পরিমাণে মদ্যপান করে বিমানে ওঠেন তাহলে তা আপনার মস্তিষ্কের ক্ষতি করতে পারে। সেই কারণেই, বিমান সেবিকারা এ বিষয়েও যথেষ্ট কড়া নজর রাখেন।

৩) বিমানে যখনই জল খাবেন সবসময়ই সিল্‌ড করা বোতল থেকেই খাওয়া উচিত। খোলা বোতল থেকে অথবা জগ থেকে জল ঢেলে কখনো না খাওয়াই ভাল।

৪। বিমানে যখন উঠবেন সাথে কিন্তু হ্যান্ড-স্যানিটাইজার নিয়ে উঠবেন। না হলে, বিমানের ভিতরে যদি কিছু খান তাহলে আগে অবশ্যই হাত ধুয়ে নিন, আর সিটের পেছনের ট্রেতে কখনো খাবার রাখবেন না।

৫। ফ্লাইট যখন মাঝ আকাশে চলে যায় তখন জানালার শাটার খুলে রাখতে বলা হয়। এর কারণ হলো একটাই যদি কোনও সমস্যা হয় কখনও তা যেন সাথে সাথেই ওই বিমান সেবিকাদের চোখে পড়ে সেই কারণেই।

আরোও পড়ুন :